Hothat Dekha Lyrics (হঠাৎ দেখা) | Rabindranath Tagore

Hothat Dekha Kobita Lyrics Written by Our Great রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (Rabindranath Tagore). Hothat Dekha Poem was used in the Bengali Movie Praktan in 2016 And Hothat Dekha Poem Voice by Soumitra Chatterjee. Praktan movie was Directed by Nandita Roy And Shiboprosad Mukherjee, Starring Prosenjit Chatterjee, And Rituparna Sengupta.
Hothat Dekha Lyrics In Bangla :

রেলগাড়ির কামরায় হঠাৎ দেখা ,
ভাবিনি সম্ভব হবে কোনদিন ।।

আগে ওকে বারবার দেখেছি
লাল রঙের শাড়িতে —
দালিম-ফুলের মত রাঙা;
আজ পরেছে কালো রেশমের কাপড়,
আঁচল তুলেছে মাথায়
দোলন-চাঁপার মত চিকন-গৌর মুখখানি ঘিরে ।
মনে হল, কাল রঙের একটা গভীর দূরত্ব
ঘনিয়ে নিয়েছে নিজের চার দিকে,
যে দূরত্ব সর্ষেক্ষেতের শেষ সীমানায়
শালবনের নীলাঞ্জনে ।
থমকে গেল আমার সমস্ত মনটা :
চেনা লোককে দেখলেম অচেনার গাম্ভীর্যে ।।

হঠাৎ খবরের কাগজ ফেলে দিয়ে
আমাকে করলে নমস্কার ।
সমাজবিধির পথ গেল খুলে :
আলাপ করলেম শুরু —
‘কেমন আছো’, ‘কেমন চলছে সংসার ‘ ইত্যাদি ।
সে রইল জানালার বাইরের দিকে চেয়ে
যেন কাছের-দিনের-ছোঁয়াচ-পার-হওয়া চাহনিতে ।
দিলে অত্যন্ত ছোটো দুটো-একটা জবাব ,
কোনটা বা দিলেই না ।
বুঝিয়ে দিলে হাতের অস্থিরতায় —
কেন এ-সব কথা ,
এর চেয়ে অনেক ভাল চুপ ক’রে থাকা ।।

আমি ছিলেম অন্য বেঞ্চিতে ওর সাথিদের সঙ্গে ।
এক সময়ে আঙুল নেড়ে জানালে কাছে আসতে ।
মনে হল কম সাহস নয় —
বসলুম ওর এক বেঞ্চিতে ।
গাড়ির আওয়াজের আড়ালে
বললে মৃদুস্বরে ,
‘কিছু মনে কোরো না ,
সময় কোথা সময় নষ্ট করবার !
আমাকে নামতে হবে পরের স্টেশনেই ;
দূরে যাবে তুমি ,
দেখা হবে না আর কোনোদিনই ।

তাই, যে প্রশ্নটার জবাব এতকাল থেমে আছে ,
শুনব তোমার মুখে ।
সত্য করে বলবে তো ?’
আমি বললেম,’বলব’ ।
বাইরের আকাশের দিকে তাকিয়েই শুধোল,
‘আমাদের গেছে যে দিন
একেবারেই কি গেছে —
কিছুই কি নেই বাকি?’

একটুকু রইলেম চুপ করে ;
তার পর বললেম ,
‘রাতের সব তারাই আছে
দিনের আলোর গভীরে’ ।

খটকা লাগল, কী জানি বানিয়ে বললেম নাকি ।
ও বললে, ‘থাক এখন যাও ও দিকে’
সবাই নেমে গেল পরের স্টেশনে ।
আমি চললেম একা ।।

Hothat Dekha Lyrics In Bengali :
 

Railgarir kamray hothat dekha,
Vabini somvob hobe konodin..
Age oke bar bar dekhechi
Lal ronger sharite-
Dalim phooler moto ranga;
Aj poreche kalo reshomer kapor’
Anchol tuleche mathay
Dolonchanpar moto chikon gour mukhkhani ghire.
Mone holo, kalo ronge ekta govir durottwo
Ghonea neache nijer chardike,
Je durottwo sorshekheter sesh simanay
Shalboner nilanjone.
Thomke gelo amar somosto monta,
Chena lokke dekhlam achenar gambhirje..

Hothat khoborer kagoj phele dea
Amake korle nomoskar.
Somajbidhir poth gelo khule;
Alap korlem shuru-
‘Kemon acho’ kemon cholche songsar’
Ityadi.
Se roilo janlar bairer dike cheye
Jeno kacher diner chonach par hoya chahonite.
Dile otwonto choto duto-ekta jobab
Konota ba dilei na.
Bujhea dile hater osthirotay-
Keno esob kotha,
Er cheye onek valo chup kore thaka..

Ami chilem onno benchite or sathider songe.
Ek somoy angul nere janale kache aste.
Mone holo kom sahos noy-
Boslum or ek benchite.
Garir awajer arale
Bolle mridusware,
‘Kichu mone koro na’,
Somoy kotha somoy noshto korbar!
Amake namte hobe porer stationei;
Dure jabe tumi,
Dekha hobe na r konodin e.

Tai, je proshnotar jobab etokal theme ache,
Shunbo tomar mukhe.
Sotwo kore bolbe to?”
Ami bollem, “bolbo.”
Bairer akasher dike takeai sudholo,
‘Amader geche je din
Ekebarei ki geche,
Kichu e ki nei baki?’

Ektuku roilem chup kore;
Tarpor bollem,
“Rater sob tarai ache
Diner alor govire”
Khotka laglo, ki jani banea bollem naki.
O bolle, “thak, ekhon jao odike.”
Sobai neme gelo porer statione.
Ami chollem eka..

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

close