বাসর রাতে – গাঁ ছম ছম করা ভূতের গল্প 2021 (Bengali Horror Story)

বাসর রাতে – গাঁ ছম ছম করা ভূতের গল্প 2021 (Bengali Horror Story)

বাসর রাতে - সেরা বাংলা ভূতের গল্প 2021 (Bengali Horror Story)
ভূতের গল্প 2021

মচর মচর আওয়াজে বেশ অস্বস্তি হচ্ছিলো পারুলের| যতই হোক, শ্বশুরবাড়িতে ফুলসজ্জা বলে কথা! অন্ধকার ঘরে ভুচুর শরীরে ক্রমশ পিষ্ট হতে হতে, মনে হলো যেন তার মাথার কাছে কেউ এসে দাঁড়িয়েছে| পিছনে জানালার অল্প ছিদ্র দিয়ে আবছা আলোর রেখায় পারুলের মনে হতে লাগলো অন্য কারোর শরীরের কোমল স্পর্শ, যেন তার মাথায় হাত বুলিয়ে দিচ্ছে |


ভুচুকে একটা জোর ঠেলা দিতেই হোঁশ ফেরে ওর, বিরক্তির সুরে বলে ওঠে


-এয়াই কি কি? বলি তোমার হলোটা কি?


পারুল নিজের শাড়িটাকে কোনো মতে গায়ে জড়িয়ে ভুচুকে হাত দিয়ে ঠেলা দিয়ে বলে,


-মনে হলো ঘরে আমি তুমি ছাড়াও অন্য কে যেন রয়েছে!


ভুচুর মনযোগ দিয়ে রোমান্সের হোঁশ ফেরে, উঠে বসে চোখ রগড়িয়ে ছোট্ট আলোটা জ্বালিয়ে বলে ওঠে,


Bangla Bhuter Golpo


-বার বার বলেছিলাম, কলুটোলার মেয়ে না আনতে| ব্যাটারা এক নম্বরের রসকষহীন মানুষ, রাস্তা ঘাটে দেখলেই একেবারে গা এলিয়ে দেয়, কিন্তু আসল কাজের বেলা যত্তসব কাঠখোট্টামি, এদের দিয়ে কি রোমান্স হয়? তারপর বাপধন আবার দিয়েছে খাট একখান! কারোর কাছে গেলে মচর মচর, জাপ্টে ধরলে আর এক কাঠি বাড়া, খচর খচর! উফফ!

পারুল বুঝতে পারে, ভুচু ভীষণ খেপে গেছে


তবে চারিদিকে ভালো করে তাকিয়ে কাউকেই যে খুঁজে পায় না! ওর অভিমান ভাঙাতে আলগা সুরে বলে,


-দেখো, ভুল বুঝো না, মনে হলো কেউ যেন আশে পাশে রয়েছে! আমি কিন্তু স্পষ্ট বুঝতে পারছিলাম!


ভুচু খাট থেকে নেমে ঢকঢক করে এক গ্লাস জল খায়, এরপর খাটের তলা, আলমারির পাশ, জানালার পর্দা ভালো করে ঝাপটিয়ে পারুলের দিকে তাকিয়ে বলে


-কই, তিনি যে আছেন, খুঁজে তো পাই না এইটুকুন ঘরে|


Bengali Scary Stories


পারুলকে চুপ করে বসে থাকতে দেখে ভুচু বালিশ মাথায় টেনে শুয়ে পড়ে, নাক ডাকতেও শুরু করে দেয়| আলো নিভিয়ে চুপটি করে পারুল শুয়ে পড়ে ভুচুর দিকে এগিয়ে যায়| ওর মাথায় হাত বোলাতে বোলাতে ভাবে, সত্যি তো বেচারির ফুলশয্যে বলে কথা, তার মাঝে এই রকম রোমান্সের ব্যাঘাত, কোন পুরুষের সহ্য হয়!


মিনিট খানেক যায়, ভুচু পারুলের কোমর জাপ্টে শুইয়ে দেয়, দু হাতে চুলের মুঠি ধরে এগিয়ে যেতেই এবার টং করে আওয়াজে দুজনেই বেশ চমকে ওঠে| পারুল বলে ওঠে,


-কি? শুনলে তো?


ভুচু মুখটা পঞ্চপুরের পাঁচুর মতন করে উত্তর দেয়,


-শুনলাম তো! কিন্তু এলো কোত্থেকে?


পারুলের ডানহাতটি ধরে আস্তে আস্তে খাট থেকে নামতেই মাথার কাছে জানালাটা খোলা দেখতে পেলো| এ কি ! জানালা কে খুললো? এ তো বন্ধ ছিল! পারুল চমকে যায়, চিবুকের কাছে বিন্দু বিন্দু ঘাম জমতে শুরু করে দেয়| ভুচু একবার দরজা খুলে বাইরে বেরুনোর কথা ভাবে, কিন্তু পারুল আটকে দেয়, বলে,


নতুন বাংলা ভূতের গল্প


-কি বলবে তোমার বাড়ির লোকে? চারিদিক বন্ধ ঘরে কে রোমান্সে বাঁশ দিচ্ছে? তার থেকে চুপটি করে শুয়ে পড়ো, সকালে উঠে দেখা যাবে| আর জানালা হয়তো আলগা করে বন্ধ ছিল, হাওয়ায় খুলে গেছে|


ভুচুকে দেখে মনে হচ্ছে, ও যেন সবকিছু মেনে নিয়েছে| পুনরায় তার রোমান্সের ইচ্ছা জাগলেও সাহসে কুলোয় না, চুপটি করে পারুলের গা ঘেঁষে শুয়ে পড়ে| পারুল জেগে থাকে, তার যেন মনে হয় কেউ না কেউ এই ঘরে এসেছিলোই, স্পষ্ট তার উপস্থিতি সে টের পেয়েছে| এই সব হিজিবিজি ভাবতে ভাবতে চোখটা কখন যে লেগে গেছে সে বুঝতে পারে নি| ঘুমটা ভেঙে গেলো ভোরবেলা, খাটের কাছের জানালার নিচে একটা টুলের ওপর দুটো বালা দেখে ভুচুকে ঠেলে তোলে|


ভুচু চোখ কচলে গম্ভীর গলায় বলে ওঠে,


-এই বালা দুটো তো ঠাম্মার, আগের বছর মারা যাবার পর পিসিরা তন্ন তন্ন করে খুঁজেছে, কোত্থাও পায় নি| ছোট পিসেমশাই পুলিশে খবর দেবে বলেছিলো, ভয় দেখিয়েছিলো সবাইকে| অদ্ভুত ব্যাপার! তাহলে কি কাল রাতে ঠাম্মা এসেছিলো?


Bhooter Golpo 2021


ভুচু বালাদুটো মুঠোয় ভরে নেয়, পারুলের হাতে পরিয়ে দিতে দিতে বলতে থাকে,


-ঠাম্মার অনেক অনেক সাধ ছিল নাতবৌয়ের হাতে সোনার জিনিস দিয়ে তবেই মরতে যাবে, না হলে শান্তি পাবে না। কাল বৌভাতের রাতে তাহলে…

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

close