5 Best Bengali Poems on Winter Season (শীতকাল নিয়ে কবিতা)

শীতকাল নিয়ে কবিতা, শীতের, কুয়াশা, সকাল, আগমন, সন্ধ্যা নিয়ে কবিতা [Winter Season Poems in Bengali, Shitkal Kobita Bangla] (Bengali Poems on Winter 2021, শীতকালের কবিতা)

শীতকাল আমারই মত অনেকের একটি পছন্দের সময়। যেই সময় শীতের রাতে র‍্যাকেট খেলা, সকলে মিলে আগুন পোয়ানো, পিঠে খাওয়া, ঘুরতে যাওয়া সব কিছুই বেশ আলাদা একটা তৃপ্তি দেয়।

তাই এই শীতের মরসুমে আপনাদের জন্য আমরা নিয়ে এসেছি 5 Best Winter Season Poems In Bengali, যার কবিদের মধ্যে আছেন – Rabindranath Thakur, Kazi Nazrul Islam, Bhaskar Chakraborty, Jibanananda Das, Mahadeb Das এর মত সুপরিচিত কবিগণ। তাহলে দেখে নিয়ে যাক শীতকালের কবিতা গুলো-

#1 শীতকাল

Shitkal is a Bengali poem related to the Winter season. Bangla Kobita Shitkal was written by the Bengali poet Mahadeb Das. The poem was recited by many well-known Bengali artists.

শীতকাল কবিতা লিরিক্স

হেমন্তের সোনালী ডানায় ভর করে
আসে শীতকাল
কুয়াশার রহস্যময় চাদর জড়িয়ে
দেখা দেয় শীতকাল।

দীর্ঘ অপেক্ষার শেষে প্রাপ্তির আনন্দে
হিমশীতল বাতাসের
উজ্জ্বল হলুদ পাতার ঝরা খামে
চিঠি আসে শীতের।

উত্তরের পথ ধরে উত্তরীয় গায়ে
হয় শীতের আগমন
মাঠ ভরা সরিষার হলুদ ফুলের
মৌমাছিদের বিচরণ।

অতিথি পাখিদের আগমনে
মুখরিত করে মন
গাছিরা ব্যস্ত থাকে রস আহরণে
খেজুর গাছের ক্রন্দন।

নলেন গুড়ের সন্দেশের স্বাদ
যায় নাতো ভোলা।
ঘরে ঘরে পিঠা পুলি আর পায়েস
খেতে খেতে যায় বেলা।

মজার মজার সব্জী খেতে দারুন
প্রাণটা জুড়ায়ে যায়
শীতের রিক্ততা পুরোনো পাতা
ঝরিয়ে দেয়।

#2 পউষ

পৌষ কাজী নজরুল ইসলাম কবিতা আবৃতি

Poush is a Bengali poem related to the Winter season. Bangla Kobita Poush was written by the Bengali poet Kazi Nazrul Islam. The poem was recited by Arghadip Chakraborty.

পউষ কবিতা লিরিক্স

পউষ এলো গো!
পউষ এলো অশ্র”-পাথার হিম পারাবার পারায়ে
ঐ যে এলো গো-
কুজঝটিকার ঘোম্‌টা-পরা দিগন-রে দাঁড়ায়ে।।
সে এলো আর পাতায় পাতায় হায়
বিদায়-ব্যথা যায় গো কেঁদে যায়,
অস্ত-বধূ (আ-হা) মলিন চোখে চায়
পথ-চাওয়া দীপ সন্ধ্যা-তারায় হারায়ে।।

পউষ এলো গো-
এক বছরের শ্রানি- পথের, কালের আয়ু-ক্ষয়,
পাকা ধানের বিদায়-ঋতু, নতুন আসার ভয়।
পউষ এলো গো! পউষ এলো-
শুক্‌নো নিশাস্‌, কাঁদন-ভারাতুর
বিদায়-ক্ষণের (আ-হা) ভাঙা গলার সুর-
‘ওঠে পথিক! যাবে অনেক দূর
কালো চোখের কর”ণ চাওয়া ছাড়ায়ে।।’

Read More: বিদ্রোহী কবিতা লিরিক্স

#3 শীত

Shit (শীত) is a Bengali poem related to the Winter season. Bangla Kobita Shit was written by the Bengali poet Rabindranath Tagore. The poem was recited by many well-known Bengali artists.

শীতের কবিতা লিরিক্স

অঘ্রান হ’ল সারা,
স্বচ্ছ নদীর ধারা
বহি চলে কলসংগীতে।
কম্পিত ডালে ডালে
মর্মর-তালে-তালে
শিরীষের পাতা ঝরে শীতে।

ও পারে চরের মাঠে
কৃষাণেরা ধান কাটে,
কাস্তে চালায় নতশিরে।
নদীতে উজান-মুখে
মাস্তুল পড়ে ঝুঁকে,
গুণ-টানা তরী চলে ধীরে।

পল্লীর পথে মেয়ে
ঘাট থেকে আসে নেয়ে,
ভিজে চুল লুণ্ঠিত পিঠে।
উত্তর-বায়ু-ভরে
বক্ষে কাঁপন ধরে,
রোদ্‌দুর লাগে তাই মিঠে।

শুক্‌নো খালের তলে
এক-হাঁটু ডোবা-জলে
বাগ্‌দিনি শেওলায় পাঁকে
করে জল ঘাঁটাঘাঁটি
কক্ষে আঁচল আঁটি–
মাছ ধ’রে চুব্‌ড়িতে রাখে।

ডাঙায় ঘাটের কাছে
ভাঙা নৌকোটা আছে–
তারি​​ ‘পরে মোক্ষদা বুড়ি
মাথা ঢুলে পড়ে বুকে
রৌদ্র পোহায় সুখে
জীর্ণ কাঁথাটা দিয়ে মুড়ি।

আজি বাবুদের বাড়ি
শ্রাদ্ধের ঘটা ভারি,
ডেকেছেন আশু জদ্দার।
হাতে কঞ্চির ছড়ি
টাট্টু ঘোড়ায় চড়ি
চলে তাই কালু সর্দার।

বউ যায় চৌগাঁয়ে,
ঝি-বুড়ি চলেছে বাঁয়ে,
পাল্‌কি কাপড়ে আছে ঘেরা।
বেলা ওই যায় বেড়ে
হাঁই-হুঁই ডাক ছেড়ে,
হন্‌-হন্‌ ছোটে বাহকেরা।

শ্রান্ত হয়েছে দিন,
আলো হয়ে এল ক্ষীণ,
কালো ছায়া পড়ে দিঘি-জলে।
শীত-হাওয়া জেগে ওঠে,
ধেনু ফিরে যায় গোঠে,
বকগুলো কোথা উড়ে চলে।

আখের খেতের আড়ে
পদ্মপুকুর-পাড়ে
সূর্য নামিয়া গেল ক্রমে।
হিমে-ঘোলা বাতাসেতে
কালো আবরণ পেতে
খড়-জ্বালা ধোঁওয়া ওঠে জ’মে।

Read More: হঠাৎ দেখা কবিতা লিরিক্স

#4 শীতকাল কবে আসবে সুপর্ণা

শীতকাল কবে আসবে সুপর্ণা কবিতা আবৃতি

Shitkal Kobe Asbe Suparna is a Bengali poem related to the Winter season. Bangla Kobita Shitkal Kobe Asbe Suparna was written by the Bengali poet Bhaskar Chakraborty. The poem was recited by Kishore Majumder, Sanmita Bhaumik and many well-known Bengali artists.

শীতকাল কবে আসবে সুপর্ণা কবিতা লিরিক্স

শীতকাল কবে আসবে সুপর্ণা
আমি তিনমাস ঘুমিয়ে থাকব
প্রতি সন্ধ্যায় কে যেন ইয়ার্কি করে
ব্যাঙের রক্ত ঢুকিয়ে দেয় আমার শরীরে
আমি চুপ করে বসে থাকি- অন্ধকারে
নীল ফানুস উড়িয়ে দেয় কারা,
সারারাত বাজি পোড়ায় হৈ-হল্লা-
তারপর হঠাৎ
সব মোমবাতি ভোজবাজীর মত নিবে যায় একসঙ্গে-
উৎসবের দিন
হাওয়ার মত ছুঁতে যায়,

বাঁশির শব্দ
আর কানে আসে না-
তখন জল দেখলেই লাফ দিতে ইচ্ছে করে আমার
মনে হয়- জলের ভেতর- শরীর ডুবিয়ে
মুখ উঁচু করে নিঃশ্বাস নিই সারাক্ষণ-
ভালো লাগে না সুপর্ণা,
আমি মানুষের মতো না, আলো না, স্বপ্ন না-
পায়ের পাতা
আমার চওড়া হয়ে আসছে ক্রমশ-
ঘোড়ার খুরের শব্দ শুনলেই
বুক কাঁপে, তড়বড়ে নিঃশ্বাস ফেলি,
ঘড়ির কাঁটা আঙুল দিয়ে এগিয়ে দিই প্রতিদিন-
আমার ভালো লাগে না- শীতকাল
কবে আসবে সুপর্ণা আমি তিনমাস ঘুমিয়ে থাকব

একবার ভোরবেলা ঘুম থেকে উঠেই মেঘ ঝুঁকে থাকতে দেখেছিলাম
জানলার কাছে- চারদিক অন্ধকার
নিজের হাতের নখও স্পষ্ট দেখা যাচ্ছিল না সেদিন-
সেইদিন তোমার কথা মনে পড়তেই আমি কেঁদে ফেলেছিলাম-
চুলে, দেশলাই জ্বালিয়ে
চুল পোড়ার গন্ধে ঘুমিয়ে পড়েছিলাম আবার-
এখন আমি মানুষের মত না-
রাস্তা দিয়ে হাঁটতে হাঁটতে
হঠাৎ এখন লাফ দিতে ইচ্ছে করে আমার-
ভালোবাসার কাছে, দীর্ঘ তিনমাস
আর মাথা নীচু করে বসে থাকতে ভালো লাগে না-
আমি মানুষের পায়ের শব্দ শুনলেই
তড়বড়ে নিঃশ্বাস ফেলি এখন-
যে দিক দিয়ে আসি, সে দিকেই দৌড় দি
কেন এই দৌড়ে যাওয়া?
আমার ভালো লাগে না
শীতকাল কবে আসবে সুপর্ণা
আমি তিনমাস ঘুমিয়ে থাকব।

#5 শীত রাত

Shitraat is a Bengali poem related to the Winter season. Bangla Kobita Shitraat was written by the Bengali poet Jibanananda Das. The poem was recited by many well-known Bengali artists.

শীতের রাত কবিতা লিরিক্স

এই সব শীতের রাতে আমার হৃদয়ে মৃত্যু আসে;
বাইরে হয়তো শিশির ঝরছে, কিংবা পাতা,
কিংবা প্যাঁচার গান; সেও শিশিরের মতো, হলুদ পাতার মতো।

শহর ও গ্রামের দূর মোহনায় সিংহের হুঙ্কার শোনা যাচ্ছে –
সার্কাসের ব্যথিত সিংহের।

এদিকে কোকিল ডাকছে – পউষের মধ্য রাতে;
কোনো-একদিন বসন্ত আসবে ব’লে?
কোনো-একদিন বসন্ত ছিলো, তারই পিপাসিত প্রচার?
তুমি স্থবির কোকিল নও? কত কোকিলকে স্থবির হ’য়ে যেতে দেখেছি,
তারা কিশোর নয়,
কিশোরী নয় আর;
কোকিলের গান ব্যবহৃত হ’য়ে গেছে।

সিংহ হুঙ্কার ক’রে উঠছে:
সার্কাসের ব্যথিত সিংহ,
স্থবির সিংহ এক – আফিমের সিংহ – অন্ধ – অন্ধকার।
চারদিককার আবছায়া-সমুদ্রের ভিতর জীবনকে স্মরণ করতে গিয়ে
মৃত মাছের পুচ্ছের শৈবালে, অন্ধকার জলে, কুয়াশার পঞ্জরে হারিয়ে যায় সব।

সিংহ অরন্যকে পাবে না আর
পাবে না আর
পাবে না আর
কোকিলের গান
বিবর্ণ এঞ্জিনের মত খ’শে খ’শে
চুম্বক পাহাড়ে নিস্তব্ধ।
হে পৃথিবী,
হে বিপাশামদির নাগপাশ, – তুমি
পাশ ফিরে শোও,
কোনোদিন কিছু খুঁজে পাবে না আর।

Final Words

শীতকাল নিয়ে কবিতা গুলো শীতের এই মরসুমের সাথে একদম পরিপূর্ণ। শীতকালের কবিতা গুলো শুধু ছোটরা নয় ছোট ও বড়ো উভয় ক্ষেত্রের মানুষই পড়তে পারেন। কবিতা গুলো ভালো লেগে থাকলে নীচে কমেন্ট বক্সে সুন্দর একটি কমেন্ট ছেড়ে যান যাতে আমরা এরকমই আরও সুন্দর কবিতা ভবিষ্যতে উপহার দিতে পারি।

FAQs

Q1. শীতকাল কবে আসবে সুপর্ণা কবিতা কে লিখেছেন?

Ans. ভাস্কর চক্রবর্তী

Q2. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কয়টি শীতের কবিতার নাম?

Ans. শীত, শীতের বিদায়, ওগো শীত, শীতের হাওয়া, ইত্যাদি।

Q3. কাজী নজরুল ইসলামের শীতের কবিতার নাম?

Ans. পউষ, শীতের সিন্ধু, ইত্যাদি।

Q4. জীবনানন্দ দাশের শীতকালের কবিতার নাম?

Ans. শীত রাত

Q5. শীতকাল কবিতাটি কে লিখেছেন?

Ans. মহাদেব দাশ

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

close